Home / অন্যান্য / স’হ’বাসে বেশি আ’নন্দ পেতে বে’র হলো নতুন পজিশন

স’হ’বাসে বেশি আ’নন্দ পেতে বে’র হলো নতুন পজিশন

প্রেম-ভালোবাসার ক্ষেত্রে পুরু’ষদের কাছে শা’রীরিক সম্প’র্ক খুবই গু’রুত্ব পূর্ণ একটি বি’ষয়। কিন্তু এমন কিছু বি’ষয় আছে যা না’রীদের কাছে সেই গো’পন সু’খে’র চাইতেও অনেক বেশি গু’রুত্ব পূর্ণ। কেবল মিল’নে সু’খ নয়, নিজেদের একান্ত সম্প’র্কে পছন্দের পুরু’ষের কাছ থেকে এই বি’ষয়গুলোও আশা করেন না’রীরা।

কি করলে আপনার স’ঙ্গিনী খুশি হবেন, তারই কিছু সহজপাঠ এখানে দেয়া হলো। ব্য’ক্তি বিশেষে এই চা’হিদা’র রক’মফের হলেও দেখা গিয়েছে কমবেশি এই ব্যবহারই কামনা করেন অধিকাংশ না’রী। ১. যার মধ্যে প্রথমেই রয়েছে আলতো চু’ম্বন।

জো’র করে নয়, দু’পক্ষের স’ম্মতিতেই এই চুম্ব’ন হওয়া বাঞ্ছনী’য়। ২. স্প’র্শ। পোশাকি ভাষায় যাকে বলে গুড টাচ।৩. গ’ভীর আ’লি*ঙ্গন। যাতে থাকবে সারাজীবন পাশে থাকার ই’ঙ্গিত। এই বি’ষয়গু’লি না’রীদের কাছে শা’রীরিক সম্প’র্কের থেকেও অনেক বেশি গু’রুত্ব পূর্ণ।

৪. গো’পন মি’লনের পর গ’ভীর আলি’ঙ্গনে পর’স্পরকে জড়িয়ে ঘুমানো’টাও অধিকাংশ না’রীই পছন্দ করেন। ৫. এ’কান্ত মুহূ’র্তে আবেগ’ঘন প্র’শংসা না’রীদের খুবই প্রিয়। ৬. পাশাপাশি হাত ধ’রে হাঁটা, উপহার, বিশেষ মুহূ’র্তে ‘ভালোবাসি’ বলা,

মজার খু’নসুটি, ম’জার কোন ইঙ্গি’ত ইত্যাদি ব্যাপারগুলো না’রীদের কাছে খুবই গু’রুত্ব পূর্ণ। ৫০ বছর ধরে বিয়ে পড়ান ভুয়া কাজি ! নিবন্ধ’ন না থাকার পরও বিয়ে পড়ানোর অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মোহাম্ম’দ মোসাদ্দেক

হোসেন (৬১) নামে এক ব্যক্তিকে সোমবার দুপুরে বিয়ের আসর থেকে আ’টক করা হয়েছে। পৌর এলাকার কাউতলীর একটি হোটেল থেকে কাজি সমিতির নেতারা তাঁকে আ’টক করে পু’লিশের হাতে তুলে দেয়।

আ’টক মোসাদ্দেক জে’লার নবীনগর উপজে’লায় শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের বানিয়াচং গ্রামের মৃ’ত শরীফ উদ্দিনের ছেলে। তাঁর কাছ থেকে একটি বিয়ে নিবন্ধ’ন বই ও দুটি তালাক নিবন্ধ’ন বই এবং সিলমোহর উ’দ্ধার করা হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া

জে’লা কাজি সমিতির সভাপতি ইয়াহিয়া মাসুদ জানান, মোসাদ্দেক স’রকারের নিবন্ধিত কোনো কাজি নন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কাজি পরিচয়ে বিয়ে পড়িয়ে আসছিলেন। তাজ হোটেলে একটি বিয়ে নিবন্ধ’ন করার সময় কাজি সমিতির

নেতারা তাঁকে হাতেনাতে আ’টক করেন। এরপর তাঁকে জে’লা রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন ধরে একটি চ’ক্র ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে বিয়ে ও তালাক নিবন্ধ’ন করে আসছে।

মূ’লত নিবন্ধিত কাজিরা যেসব বিয়ের নিবন্ধ’ন কাজ প্রত্যাখ্যান করেন- ওই চ’ক্রটি সেসব বিয়ে নিবন্ধ’ন করে থাকে। আ’টক মোসাদ্দেক জানান, তিনি ১৯৭১ সাল থেকে কাজির দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁর কাগজপত্রের বৈধতা নিয়ে

আ’দালতে মা’মলা আছে। মা’মলার একাধিক রায়ও তিনি পেয়েছেন। জে’লা রেজিস্ট্রার স’রকার লুৎফুল কবির বলেন, আ’টক ব্যক্তি নিবন্ধিত কাজি নন। তাঁর বৈধতার পক্ষে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে পারেননি তিনি। এ ছাড়া তাঁর কাছে

পাওয়া নিবন্ধ’ন বইগুলোও নকল বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক (ত’দন্ত) মুহাম্ম’দ শাহজাহান জাহান, ওই ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ বি’ষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

About admin

Check Also

স্ত্রী’কে সারা রাত স’হ’বাসে তৃপ্তি দিন ১ টু’করো মুখে নিয়ে

সুস্থ দে’হ ও সুন্দর মন পাওয়ার আকাঙ্খা সবারই থাকে। আজীবন তারুণ্য ধরে রাখতে এবং যৌ’বনের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *